42780

চলে গেলেন বাড়ির দেয়াল ভেঙে হাসপাতালে নেয়া সেই নুরুল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সার্জারি করে ওজন কমাতে গিয়ে মারা গেলেন পাকিস্তানের সবচেয়ে ওজনের ব্যক্তি নুরুল হাসান।সোমবার লাহোরের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। খবর ডেইলি পাকিস্তানেরতার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে হাসপাতালের চিকিৎসক মুয়াজ বলেন, ‘আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একটি সমস্যার কারণে মারা যান নুরুল হাসান।’তবে নুরুল হাসানের পরিবার বলছে, হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছেন তিনি।

পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের বাসিন্দা নুরুল হাসানের ওজন ছিল ৩৩০ কেজি।গত জুন মাসে লাহোর থেকে ৪০০ কিলোমিটার দূরে সাদিকাবাদ গ্রাম থেকে যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে উদ্ধার করা হয় নুরুল হাসানকে।ওজনের কারণে নুরুল এতোটাই স্থুলকায় ছিলেন যে, তাকে তার বাড়ির দরজা দিয়ে বের করা যায়নি। দেয়াল ভেঙে তাকে বের করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

ডেইলি পাকিস্তান জানায়, শরীরের ওজন কমিয়ে আনতে নুরুল হাসানের কয়েক দফা সফল সার্জারি করা হয়। কয়েক সপ্তাহ আগে নুরুল হাসান লাহোরের শালিমার হাসপাতালে একটি সার্জারি করিয়েছিলেন। এর আগে পাঞ্জাবে তার চিকিৎসা চলছিল।পরে চিকিৎসার ব্যয় বহন করার সক্ষমতা না থাকায় নুরুল হাসানের চিকিৎসার দায়িত্ব নেন দেশটির সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল কামার জাবেদ বাজওয়া।

তাকে পাঞ্জাব থেকে লাহোরের ওই হাসপাতালে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে নিয়ে যাওয়া হয়। কয়েক দফা সার্জারির পর হঠাৎ শারীরিক অবস্থার মারাত্মক অবনতি ঘটে।সোমবার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন পাকিস্তানের সবচেয়ে ওজনের এই ব্যক্তি।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *